ধুনট উপজেলাপ্রধান খবর

বগুড়ায় নারী পুলিশ কর্মকর্তাকে নির্যাতনের অভিযোগে স্বামী গ্রেফতার

বগুড়ার ধুনটে যৌতুকের দাবিতে সিআইডি’র এক নারী পুলিশ কর্মকর্তাকে নির্যাতনের মামলায় তার স্বামী উজ্জল মাহমুদকে (৩০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতার উজ্জল মাহমুদ উপজেলার ভান্ডারবাড়ি ইউনিয়নের পুখুরিয়া গ্রামের জামিনুল ইসলামের ছেলে।

শুক্রবার দুপুরের দিকে ধুনট থানা থেকে আদালতের মাধ্যমে উজ্জল মাহমুদকে বগুড়া জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করেছে।  

জানা যায়, বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার চালুঞ্জা গ্রামের লোকমান হোসেনের মেয়ে এএসআই কাজলী খাতুনকে প্রায় ৩ বছর আগে বিয়ে করেন উজ্জল মাহমুদ। এএসআই কাজলী খাতুন বর্তমানে অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) নাটোর জেলায় কর্মরত আছেন। বিয়ের পর থেকেই বিভিন্ন সময়ে যৌতুকের দাবি করলে বাধ্য হয়ে উজ্জলকে কয়েক দফায় ১০ লাখ টাকা দেন কাজলী।

৫দিনের ছুটি নিয়ে ১৫ নভেম্বর কাজলী পুখুরিয়া গ্রামে স্বামীর বাড়িতে আসেন। এ সময় উজ্জল তার স্ত্রীর কাছে আবারো ৫ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। কিন্ত টাকা দিতে অস্বীকার করায় কাজলীকে নির্যাতন করেন উজ্জল ও তার পরিবারের লোকজন। আহত কাজলী বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নেন।

এ ঘটনায় কাজলী বাদি হয়ে বৃহস্পতিবার ধুনট থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় উজ্জল মাহমুদ ও তার মা-বাবা, বোনকে আসামী করা হয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানান, মামলার অন্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এসএ

এই বিভাগের অন্য খবর

Back to top button