ধুনট উপজেলাপ্রধান খবর

বগুড়ায় ইউএনওর বাড়ী থেকে মিললো সরকারি চাল

বদলী হওয়ায় চলে যাওয়ার আগমুহুর্তে উপজেলা চেয়ারম্যানের কাছে ২২১ বস্তা ত্রাণ সামগ্রী হস্তান্তর করেছেন সদ্য বদলী হওয়া বগুড়ার ধুনটের উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সঞ্জয় কুমার মহন্ত। ত্রাণ সামগ্রীগুলো সাম্প্রতিক সময়ের নয়। ২০২১ সালের করোনাকালীন ‘প্রধানমন্ত্রীর উপহারের’। খাবার অযোগ্য এসব ত্রাণ সামগ্রীর কথা জানাজানি হওয়ার পর থেকে এলাকায় সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ইউএনও সঞ্জয় কুমার মহন্তকে গত ৭মার্চ ধুনট উপজেলা থেকে রাজশাহীর গোদাগাড়ি উপজেলায় বদলী করা হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার ছিল ধুনট উপজেলায় তার শেষ কর্ম দিবস। ওইদিন বিকেল ৩টার দিকে উপজেলা পরিষদের সরকারি বাস ভবন থেকে ২২১ বস্তা নষ্ট হয়ে যাওয়া খাবার অযোগ্য ত্রাণ সামগ্রীর বস্তা উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হাই খোকনের সরকারি বাস ভবনে রাখেন।

সরেজমিনে দেখা গেছে, সাড়ে ১৫ কেজি ওজনের প্রতিটি ত্রাণ সামগ্রীর বস্তাগুলোর মধ্যে চাল, ডাল, লবন, তেল, চিড়া, নুডলস, চিনি, হলুদ, মরিচ, ধনিয়া গুড়া মসলা রয়েছে। বস্তার গায়ে লেখা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রনালয় ২০২১-২০২২অর্থ বছর ও ০৭.০৭.২০২১ তারিখ।

উপজেলার চেয়ারম্যানের বাসভবনে নেয়ার সময় দেখা যায় অধিকাংশ বস্তা ইঁদুরে কেটেছে। প্রায় দুই বছরের অধিক সময়ের এই ত্রাণ সামগ্রীগুলো মেয়াদোর্ত্তীণ হয়ে খাবার অযোগ্য হয়ে পড়েছে।

উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হাই খোকন বলেন, ইউএনও সঞ্জয় কুমার মহন্ত শেষ কর্মদিবসে ২২১ বস্তা ত্রাণ সামগ্রী লেবার শ্রমিক দিয়ে তার সরকারী বাসায় রেখেছেন । রেখে দেওয়া ত্রাণ সামগ্রী অনেকটাই খাবার অযোগ্য।

(এ আর)

এই বিভাগের অন্য খবর

এছাড়াও দেখুন
Close
Back to top button